উপবৃত্তি ও পোশাক কেনার টাকা পাবে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা

উপবৃত্তি ও পোশাক কেনার টাকা পাবে প্রাথমিক শিক্ষার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

অবশেষে উপবৃত্তির টাকা পাচ্ছে প্রাথমিকের প্রায় এক কোটি ৪০ লাখ শিক্ষার্থী। দীর্ঘদিন আটকে থাকার পর ঈদের আগেই পরপর ৯ মাসের টাকা পাবে শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে প্রথমবারের মতো প্রত্যেক শিক্ষার্থী জামা, জুতা ও ব্যাগ কেনার জন্য টাকা পাবে।

এ জন্য এ–সংক্রান্ত প্রকল্পের মেয়াদ এক বছর বাড়ানো হয়েছে বেলে জানা গেছে। করোনাভাইরাসের সংকটের মধ্যেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ‘প্রাথমিক শিক্ষার জন্য উপবৃত্তি প্রদান’ প্রকল্পের পরিচালক মো. ইউসুফ আলী আজ মঙ্গলবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিন মাস পরপর বছরে চার কিস্তিতে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা দেয় সরকার। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা দেওয়া হয় মায়েদের কাছে। চলতি মাসে উপবৃত্তি দেয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রয়োজনীয় অনুমোদন দিয়েছেন।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়েছে, এই প্রকল্পের মেয়াদ জানুয়ারি থেকে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত চলবে। গত অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরের উপবৃত্তির টাকা অতিসত্বর দেওয়া হবে।

এছাড়া করোনাকালীন জানুয়ারি থেকে জুনের উপবৃত্তি একসঙ্গে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রকল্পের সংশোধনীতে প্রধানমন্ত্রী প্রতি শিক্ষার্থীকে জামা, জুতা ও ব্যাগ কেনার জন্য এক হাজার টাকা ‘অ্যালাউন্স’ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের ১৪ মে’র মধ্যে তথ্য দিতে বলা হয়েছে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি দেয়ার ফলে প্রাথমিকে ভর্তি বেড়েছে, ঝরে পড়াও কমেছে। তবে জটিলতার কারণে গত বছরের অক্টোবর থেকে টাকা পাচ্ছে না শিক্ষার্থীরা। প্রকল্পের মেয়াদ গত ডিসেম্বরে শেষ হলেও জটিলতা বাড়ে।

করোনার সংকটেয় টাকা পেলে উপকার হতো বলে অভিভাবকেরা জানিয়ে আসছেন। প্রকল্প পরিচালক বলেন, সরকারের অনুমোদন পাওয়ায় কিছুদিনের মধ্যে গত অক্টোবর-ডিসেম্বরের কিস্তির উপবৃত্তির টাকা দেওয়া হবে। আর জানুয়ারি থেকে জুনের কিস্তির টাকা ঈদের আগেই দেওয়া হবে। একই সঙ্গে জামা, জুতা ও ব্যাগ কেনার টাকাও পাবে তারা।

-এফকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter