স্বাস্থ্যঃ
দেশের সর্বপ্রথম জেসিআই স্বীকৃত হাসপাতাল এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা, একটি হার্ট ফেইলিওর ক্লিনিক চালু করেছে।

এই ক্লিনিকে এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র হার্ট ফেইলিওর ক্লিনিক ও ইন্টারভেনশনাল কার্ডিওলজি’র সিনিয়র কনসালটেন্ট অধ্যাপক ডা. এম. আতাহার আলী’র নেতৃত্বে অভিজ্ঞ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞদের তত্ত্বাবধানে দ্রুততম সময়ে হার্ট ফেইলিওর সংক্রান্ত সকল চিকিৎসা-পরামর্শ প্রদান করা হবে।

ক্লিনিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়-এর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো: শারফুদ্দিন আহমেদ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ কার্ডিয়াক সোসাইটির সভাপতি ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ (এনআইসিভিডি)-এর সাবেক পরিচালক অধ্যাপক এ কে এম মহিবুল্লাহ ও বাংলাদেশ কার্ডিয়াক সোসাইটির মহাসচিব ও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কার্ডিওভাসকুলার ডিজিজ (এনআইসিভিডি)-এর সাবেক অধ্যাপক ও পরিচালক ডা. আব্দুল্লাহ আল শাফি মজুমদার উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়-এর উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো: শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন “এই হার্ট ফেইলিওর ক্লিনিকের উদ্বোধন করতে পেরে আমি আনন্দিত।

দেশের মাটিতে বিশ্বমানের চিকিৎসা নিশ্চিতের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করায় এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র কর্তৃপক্ষ ও সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

আমাদের দেশের চিকিৎসার মান ও চিকিৎসকগণ বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর তুলনায় কোন অংশে কম নয় বলে আমি মনে করি। আমাদের বর্তমান জীবনযাত্রার ফলে যে কেউই হার্ট ফেইলিওরের শিকার হতে পারে।

তাই এই ঝুঁকি থেকে সুরক্ষিত থাকতে আমাদের কিছু জিনিস বর্জন বা নিয়ন্ত্রণ করা উচিৎ; ধূমপান ত্যাগ করা, চিনি না খাওয়া, লবন কম খাওয়া; দুশ্চিন্তামুক্ত থাকার চেষ্টা করা, একঘেয়ে জীবন পরিত্যাগ করা ইত্যাদি।”

তিনি আরও বলেন, “বাংলাদেশকে ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত দেশে পরিণত এবং দেশে উন্নত স্বাস্থ্যব্যবস্থা বাস্তবায়ন করতে সকলকে একত্রে কাজ করার আহ্বান জানাচ্ছি।”

এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র হার্ট ফেইলিওর ও অ্যারিদমিয়া ক্লিনিক-এর সিনিয়র কনসালটেন্ট অধ্যাপক ডা. এম. আতাহার আলী বলেন, “হার্ট ফেইলিওর মানেই হৃদপিন্ড কাজ করা বন্ধ করে দেওয়া নয়।

তবে এটি একটি গুরুতর শারীরিক অবস্থা এবং যথাসময়ে সঠিক চিকিৎসা আবশ্যক। অন্যথায় রোগীর মৃত্যুঝুঁকি অনেকাংশে বেড়ে যেতে পারে। অস্বাভাবিক জীবনযাত্রার কারণে দেশে হার্ট ফেইলিওরে ঝুঁকিগ্রস্থ রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই দেশের অন্যতম সেরা হাসপাতাল হিসেবে আমরা বিশেষায়িত ক্লিনিক চালুর উদ্যোগ নিয়েছি।”

তিনি আরও বলেন, “এই ক্লিনিকের মাধ্যমে সকল রোগীকে বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের ব্যাপারে আমরা আশাবাদী।”

এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র মেডিক্যাল সার্ভিসেসের ডেপুটি ডিরেক্টর ডা. আরিফ মাহমুদ বলেন, “প্রতিবছরই বিভিন্ন কারণে (জলবায়ু, খাদ্যাভ্যাস, জীবনযাত্রা ইত্যাদি) হৃদরোগের সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বেড়েই চলেছে। এর মধ্যে হার্ট ফেইলিওর এর রোগীর সংখ্যাও উল্লেখযোগ্য।

এই রোগীদের সুষ্ঠু চিকিৎসা এবং দীর্ঘ জীবন যাপনের জন্য প্রয়োজন সচেতনতা, চিকিৎসা ও জীবনযাত্রার পরিবর্তন। এই উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা হার্ট ফেইলিওর ও অ্যারিদমিয়া ক্লিনিকের যাত্রা শুরু করল ।

এই ক্লিনিকের মাধ্যমে হার্ট ফেইলিওর রোগীদের সমন্বিত চিকিৎসা এক ছাদের নিচে দেয়া সম্ভব হবে।”

-শিশির

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter