গুলশান-অনুরাধা লিভ টুগেদারেই ছিলেন

মিলি সুলতানা, নিউইয়র্কঃ

অনুরাধা পাডোয়াল ভারতীয় অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন কণ্ঠশিল্পী। ৯০ দশকের ব্লকবাস্টার হিন্দি ফিল্ম আশিকী, দিল, ফুল অউর কাঁটে, সাজান সিনেমার ব্লকবাস্টার গানের কথা আমাদের সবার মনে আছে। অনুরাধা পাডোয়াল কুমার শানু উদিত নারায়ণের সাথে ডুয়েট এবং একক কণ্ঠে কালজয়ী গানগুলো গেয়েছেন।

১৯৯১ সালে অনুরাধার স্বামী অরুণ পাডোয়াল মারা গেলে দুই ছেলেমেয়ে নিয়ে অনুরাধা অসহায় হয়ে পড়েন। তখন তার পাশে এসে দাঁড়ান। টি- সিরিজের মালিক এবং চলচ্চিত্র প্রয়োজক গুলশান কুমার। টি- সিরিজের ব্যানারে প্রচুর ভজন ও শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের অ্যালবাম বের হয়। যার অধিকাংশই ছিল অনুরাধার গাওয়া। এক পর্যায়ে গুলশান কুমার ও অনুরাধার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। তারা অনেকদিন লিভ টুগেদারে ছিলেন।

অনুরাধার কন্যা কবিতা পাডোয়ালকে গানের জগতে নিয়ে আসেন গুলশান কুমার। কবিতার মিউজিক অ্যালবাম বের হয়। এদিকে গুলশানের স্ত্রী সুদেশ কুমারী তার স্বামীর সাথে অনুরাধার সম্পর্ক মেনে নিতে পারেননি। অনুরাধাকে কেন্দ্র তাদের দাম্পত্য কলহ চরম রূপ নেয়। এরইমধ্যে মুম্বাইয়ের আন্ধেরি এলাকায় আততায়ীর গুলিতে নিহত হন গুলশান কুমার। গুলশান মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের সাথে ব্যবসায়িক দ্বন্দ্বে জড়িয়ে পড়েন। যার ফলশ্রুতিতে মাফিয়া ডনের নির্দেশে গুলশান কুমারকে হত্যা করা হয়েছিল। গুলশান কুমারের তিন সন্তান — ভুষণ কুমার, খুশালি কুমার ও তুলসি কুমার।

গুলশান যখন অনুরাধার মেয়ে কবিতাকে প্রমোট করেছিলেন তখন তার স্ত্রী সুদেশ কুমারী তাকে চ্যালেঞ্জ করেন, “আজ তুমি তোমার প্রেমিকার মেয়েকে প্রমোট করছ। একদিন আমার মেয়ে তার যোগ্যতা দিয়ে খ্যাতি ছিনিয়ে আনবে।” সেদিন সুদেশ কুমারী তার মেয়ে তুলসি কুমারের কথাই বলেছিলেন। আজ তুলসি কুমার হিন্দি সিনেমার সুপারহিট প্লেব্যাক সিঙ্গার। একের পর এক সুপারহিট গান উপহার দিয়ে চলেছেন তুলসি কুমার। তুলসির বোন খুশালি কুমার নামকরা মডেল ও ফ্যাশন ডিজাইনার।


বর্তমানে কবিতা পাড়োয়াল কালের স্রোতে হারিয়ে গেছেন। তবে সুদেশ কুমারীর মেয়ে তুলসি কুমার খ্যাতির চূড়ায় পৌঁছে যাচ্ছেন।

-শিমি

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter