চট্টগ্রাম র‌্যাবের হাতে বিপুল পরিমান টিসিবির পন্য উদ্ধার

চট্টগ্রাম র‌্যাবের হাতে বিপুল পরিমান টিসিবির পন্য উদ্ধার

আইন আদালতঃ
র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম বিপুল পরিমান টিসিবির পন্য (সয়াবিন তেল, ডাল ও চিনি) আটক করেছে। সাধারণ মানুষের কাছে খোলা বাজারে বিক্রি না করে অধিক মুনাফা লাভের আশায় অবৈধভাবে মহানগরীর ইপিজেড থানাধীন সিমেন্ট ক্রসিং কাঁচা বাজার সংলগ্ন জামে মসজিদের পিছনে মোঃ জসিমউদ্দিনের মালিকানাধীন গাউছিয়া স্টোর নামীয় গোডাউনে মজুদ রেখেছে।

ওই পন্য কালোবাজারে বিভিন্ন ব্যবসায়ীদের নিকট বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে টিসিবি লেখাযুক্ত সয়াবিন তেলের প্লাস্টিকের বোতল হতে সয়াবিন তেল খোলে তা বড় টিনের ড্রামে এবং টিসিবি লিখাযুক্ত চিনি ও ডালের প্যাকেট হতে চিনি ও ডাল বের করে আলাদা প্লাস্টিকের বস্তার ভিতরে সংরক্ষণ করছে।

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে ২২ মার্চ ২০২২ ইং তারিখ ০৯০৫ ঘটিকায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল অভিযান পরিচালনা করে আসামী ১। মোঃ কামরুল ইসলাম রাশেদ (৩৯), পিতা-মৃত মোঃ হানিফ, সাং-রাজাপুকুরপাড়া, থানা-পতেঙ্গা, জেলা-চট্টগ্রাম, ২। মোঃ নুরুল্লাহ(৩৮), পিতা-মৃত কামাল উদ্দিন, সাং-খাগরিয়া, থানা-সাতকানিয়া, জেলা-চট্টগ্রাম, এবং ৩। মোঃ জসিমউদ্দিন(৪৩), পিতা-মৃত হাজি আবুল কালাম, সাং-দক্ষিণ হালিশহর, থানা-ইপিজেড, জেলা-চট্টগ্রামকে আটক করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে ও তাদের দেখানো শনাক্ত মতে উক্ত গোডাউনের ভিতর থেকে টিসিবি লেখাযুক্ত ২০০০ লিটার সয়াবিন তেল, ৫০০ কেজি মসুর ডাল এবং ৫০০ কেজি চিনি জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ কামরুল ইসলাম রাশেদকে জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, সে টিসিবির পন্য বিক্রয়ের একজন ডিলার। সে গোডাউনে থাকা টিসিবির পন্য (সয়াবিন তেল, মসুর ডাল ও চিনি) খোলা বাজারে ভোক্তাদের মাঝে বিক্রয়ের কথা থাকলেও তা না করে অধিক লাভবান হওয়ার আশায় কালোবাজারের মাধ্যমে আসামী মোঃ নুরুল্লাহ এবং জসিমউদ্দিনের নিকট বিক্রয় করে।

আসামী মোঃ নুরুল্লাহ এবং জসিমউদ্দিনদ্বয় উক্ত টিসিবির পন্য অন্যান্য সাধারণ পণ্যের ন্যায় নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অধিক মূল্যে বিক্রির উদ্দেশ্যে টিসিবি লেখাযুক্ত সয়াবিন তেলের প্লাস্টিকের বোতল হতে অপসারণ করে বড় টিনের ড্রামে এবং ডাল ও চিনি টিসিবি লেখাযুক্ত প্যাকেট হতে অপসারণ করে প্লাস্টিকের বস্তার ভিতর সংরক্ষণ করছিল বলে স্বীকার করে।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

-শিশির

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter