ট্রেনিং কারের চাপায় ছেলের সামনে বাবার মৃত্যু

ট্রেনিং কারের চাপায় ছেলের সামনে বাবার মৃত্যু

সারাদেশঃ
ট্রেনিংকারের চাপায় লেদু মিয়া (৪৫) নামে এক ভ্যান চালক নিহত হয়েছেন। এ সময় হোসেন বয়াতি ও মেসির আহমেদ নামে দুইজন আহত হন। ঘটনার সময় নিহতের ছেলে ইসমাইল হোসেনের (১০) সামনে ছিলেন।

শুক্রবার (২১ অক্টোবর) ভোর সাড়ে ৬ টার দিকে সদর উপজেলার দালালবাজার এলাকায় লক্ষ্মীপুর-ঢাকা আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এদিকে হাসপাতালে লেদু মিয়ার মরদেহে জড়িয়ে ধরে সহধর্মিণী রুনা বেগমকে চিৎকার করে কাঁদতে দেখা যায়।

নিহত লেদু মিয়া লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম লক্ষ্মীপুর এলাকার হিরা গাজী বাড়ির সফিক উল্যার ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী মোশাররফ হোসেন ও ইসমাইল হোসেন জানায়, ফজরের নামাজ শেষে লেদু মিয়াসহ আহতরা হাটতে বের হয়েছিলেন। ঘটনার সময় একটি ট্রেনিংকার পেছন থেকে তাদের ধাক্কা দেয়। এতে হোসেন বয়াতি ও মেসির আহমেদ রাস্তার পাশে পড়ে যায়। আর লেদু মিয়া পাশের জঙ্গলার ভেতর গিয়ে পড়ে। সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আহতরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছে।

সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক একে আজাদ বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই রোগীর মৃত্যু হয়৷ মরদেহ লাশঘরে রাখা আছে।

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মমিনুল হক বলেন, ঘটনাটি কেউ আমাদের জানায়নি। খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

-আরপি

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter