ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত বন্ধ থাকবেঃস্বাস্থ্যমন্ত্রী

কূটনৈতিক সংবাদঃ

ভারতে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণের জন্য গত ২৬ এপ্রিল থেকে ১৪ দিনের জন্য বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সব সীমান্ত বন্ধ রয়েছে।

কিন্তু এটি ১৪ দিন নয়, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সীমান্ত বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সোমবার (৩ মে) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন তিনি।

সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশে করোনার সংক্রমণ বাড়লেও তা বর্তমানে কমে এসেছে। তবে পার্শ্ববর্তী ভারতে ব্যাপক তাণ্ডব চালাচ্ছে ভাইরাসটি। এ অবস্থায় বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করেন যে, ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বাংলাদেশে ঢুকে পড়লে দেশের অবস্থা বিপর্যস্ত হবে।

এছাড়া যেসব দোকানদার ও ক্রেতা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন না তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন।

চীন থেকে ৫ লাখ ডোজ করোনার টিকা আগামী ১০ মে আসবে বলেও এসময় জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি আরও বলেন, ৬ মে থেকে আন্তঃজেলা গণপরিবহন চলবে। তবে দূরপাল্লার বাস চলবে না। এসব নির্দেশনা মানতে হবে। এছাড়া যেসব দোকানদার ও ক্রেতা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবেন না তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, করোনা মহামারির বিস্তার ঠেকাতে চলমান বিধিনিষেধ ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এ অবস্থায় আসন্ন ঈদকে সামনে রেখে খোলা থাকা মার্কেট ও দোকানপাটে কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। তা না হলে বন্ধ করে দেওয়া হবে মার্কেট ও দোকানপাট, করা হবে জরিমানাও।

-কেএম

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter