হৃতিককে নিয়ে মাউন্টেন ডিউ’র নতুন ক্যাম্পেইন

হৃতিককে নিয়ে মাউন্টেন ডিউ’র নতুন ক্যাম্পেইন

ব্র্যান্ডঃ

ভয়ের পরেই জয়’ এই ফিলোসফি নিয়ে নতুন হাই-অক্টেন টিভিসিতে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হৃতিক রোশন এবার বুর্জ খলিফাতে

মাউন্টেন ডিউ ব্র্যান্ড হিসেবে সবসময়ই সেই সকল মানুষের চেতনাকে উদযাপন করে যারা ভয়ের মুখেও থেমে না গিয়ে নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যায় অসাধারণ কিছু করার প্রচেষ্টায়।

 আর সেই ধারাবাহিকতায় এই বছরও ‘ভয়ের পরেই জয়’ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে তারা বাংলাদেশের যুবসমাজকে তাদের ভয় ও দ্বিধাগুলোকে পেরিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্যে অনুপ্রাণিত করতে চায়।

বেভারেজ ব্র্যান্ডটি আজ থেকে তাদের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ও সুপারস্টার হৃতিক রোশনকে নিয়ে পাওয়ার-প্যাকড নতুন টিভিসি সম্প্রচার করেছে। এই টিভিসিকে আরও বেশি উত্তেজনাপূর্ণ করতে, এবারের ফিল্মটি ধারণ করা হয়েছে পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু দালান দুবাইয়ের ইমার’স বুর্জ খলিফাতে। যেকোনো প্রতিকূলতার মুখে সবসময়ই দু’টি পথ থাকে, হয় ভয়ে দমে গিয়ে পিছিয়ে যাওয়া অথবা ভয়কে পেরিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়া এবং পথ নির্বাচনই সত্যিকারের হিরোদের অন্য সবার থেকে আলাদা করে তোলে। এই বিশ্বাসের প্রতিফলনই ঘটেছে এই টিভিসিতে।

‘ভয়ের পরেই জয়’ এই অসাধারণ উপলব্ধির উপর ভিত্তি করেই ফিল্মটি শুরু হয় বার্ডস-আই ভিউতে বুর্জ খলিফার উপর থেকে নেওয়া একটা টপ শটে। যেখানে আমরা হৃতিক রোশনকে দেখি অসংখ্য দর্শকের সামনে একটি সাহসী স্টান্টে অংশ নেওয়ার জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন এবং স্টান্টটি হতে যাচ্ছে একটি বিশ্ব রেকর্ড। একদিকে দ্বিধা ও অন্যদিকে তাঁর দৃঢ় প্রত্যয়। হৃতিক রোশনকে বেছে নিতে হবে যেকোনো একটি পথ। হৃতিক তখন মাউন্টেন ডিউ-তে একটি চুমুক দেয় এবং সাথে সাথেই তার চেহারায় এক দৃঢ়তার ছাপ ফুটে উঠে ও সকল দ্বিধা ভুলে সে বুর্জ খলিফার প্রান্ত থেকে বাইক নিয়ে নেমে যায়।

মারাত্মক গতিতে যখন হৃতিক বুর্জ খলিফার উপর থেকে একটা সরু রানওয়ে দিয়ে নামছিল মাঝপথে তার বাইক স্কিড করতেই সে প্রায় পড়ে যেতে থাকে। তখন সামনে থাকা দর্শকেরা ভয়ে ও অবিশ্বাসে শিউরে ওঠে। কিন্তু হৃতিক সফলভাবে রানওয়ে দিয়ে নেমে আসে এবং বিজয়ী হিসেবে তার অবতারণায় দর্শক উল্লাসে ফেটে পড়ে।

টিভিসি শুটিংয়ের অভিজ্ঞতার ব্যাপারে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হৃতিক রোশন বলেন, “মাউন্টেন ডিউ-এর এই ফিলোসফি ‘ভয়ের পরেই জয়’ আমি নিজেও বিশ্বাস করি, আমার মনে হয় আপনি যেই হোন না কেন, যেখান থেকেই আসুন না কেন, যেকোনো ভয়ের মুখেই নিজের সাহসই একজনকে করে তোলে সত্যিকারের হিরো। বুর্জ খলিফার উপরে শুট করা খুবই রোমাঞ্চকর অভিজ্ঞতা ছিল এবং আমি নিশ্চিত এই ফিল্মটি আমার দর্শকদের খুবই পছন্দ হবে। অনেকটা আক্ষরিক অর্থেই ক্যাম্পেইনটির মাধ্যমে আমরা নতুন উচ্চতায় পৌঁছানোর চেষ্টা করছি। পাশাপাশি আমরা আশা করছি তরুণেরা আত্মবিশ্বাসকে অক্ষুণ্ণ রেখে উৎসাহিত হবে এবং ভয়গুলোকে জয় করতে পারবে।”

নতুন টিভিসির ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে, পেপসিকো বাংলাদেশ রিজিওন এর সিনিয়র মার্কেটিং ডিরেক্টর, নাসিব পুরি বলেন, “আমাদের ‘ভয়ের পরেই জয়’ ফিলোসফির সাথে মাউন্টেন ডিউ বাংলাদেশে সবসময়ই বাহবা জানিয়েছে তাদেরকে, যারা সীমা অতিক্রম করে, ঝুঁকি নিয়ে নিজের ভয় ও দ্বিধা পেছনে ফেলে ছিনিয়ে আনে জয়। এই বছর ব্র্যান্ডটি আবারও সেই বার্তাই দিতে চায় যে, যারা প্রতিকূলতার মুখেও বিজয়ী হয়ে বেরিয়ে আসে তারাই সত্যিকারের হিরো। আমরা এই ব্যাপারে নিশ্চিত যে পুরো বাংলাদেশের দর্শকেরা পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচু বিল্ডিং বুর্জ খলিফার উপর হৃতিক রোশনের এই অ্যাকশন-প্যাকড দৃশ্যগুলো খুবই পছন্দ করবে এবং ‘ভয়ের পরেই জয়’ ফিলোসফিটি তাদের সাথে জোরালোভাবে সম্পর্ক তৈরি করবে।”

মাউন্টেন ডিউ-এর এই টিভিসি টিভি, ডিজিটাল, আউটডোর এবং সোশ্যাল মিডিয়াতেও ৩৬০ ডিগ্রি ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে প্রচার করা হবে। সকল মডার্ন ও ট্রেডিশনাল রিটেইল আউটলেটে, এবং শীর্ষস্থানীয় সব ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে সিঙ্গেল ও মাল্টি সার্ভ প্যাকে মাউন্টেন ডিউ পাওয়া যাচ্ছে।

-শিশির

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter