২৭ ও ২৮ মে এসএসসি’র ফল প্রকাশের লক্ষ্যমাত্রা

২৭ ও ২৮ মে এসএসসি’র ফল প্রকাশের লক্ষ্যমাত্রা

শিক্ষাঃ
এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে ঈদের পর। আপাতত ২৭ ও ২৮ মে প্রকাশের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

করোনাভাইরাসের কারণে শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে এবার শিক্ষার্থীর ঘরে এই ফল পৌঁছানো হবে। এ লক্ষ্যে শিক্ষার্থীদের মোবাইল নম্বরের প্রাক-নিবন্ধন কাজ চলছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন বলেন, ঈদের আগে ফলপ্রকাশের চিন্তা ছিল। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি ও ঈদের ছুটির কারণে সেটা সম্ভব হচ্ছে না। ঈদের পর শিক্ষার্থীরা ফল পাবে।

এদিকে শিক্ষার্থীকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষার্থে এবার এসএমএসে শিক্ষার্থীর কাছে ফল পৌঁছানো হবে। এছাড়া অনলাইনে ফল তো দেয়া হবেই। এ লক্ষ্যে শিক্ষার্থীর সংশ্লিষ্ট মোবাইল নম্বরের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হয়েছে বলে জানান ঢাকা শিক্ষাবোর্ডের সিনিয়র সিস্টেম অ্যানালিস্ট মনজুরুল কবীর।

তিনি বলেন, সোমবার থেকে প্রাক নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। যারা এই নিবন্ধন করবে কেবল তারাই ঘরে বসে এসএমএসে ফল পাবে। সরকারিভাবে ফলপ্রকাশের সঙ্গে সঙ্গে নিবন্ধনকৃত নম্বরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফল পাঠানো হবে। তবে যারা রেজিস্ট্রেশন করবে না তারাও আগের মতো নির্ধারিত পদ্ধতিতে এসএমএসে ফল জানতে পারবে। সেজন্য ফলপ্রকাশের পর শিক্ষার্থীদের এসএমএস করতে হবে। ফিরতি এসএমএসে ফল পাঠানো হবে।

তিনি জানান, যে কোনো মোবাইল অপারেটরের নম্বর থেকেই প্রাক নিবন্ধন করা যাবে। এজন্য টেলিটকের সিম বাধ্যতামূলক নয়। প্রাক নিবন্ধনের জন্য যেকোনো মোবাইল অপারেটরের নম্বর থেকে SSC Board Name (প্রথম তিন অক্ষর) Roll Year লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। প্রতি এসএমএসের জন্য দুই টাকা চার্জ নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২০ লাখের বেশি পরীক্ষার্থী অংশ নেয়। পরীক্ষা শেষে ৬০ দিনের মধ্যে ফলপ্রকাশের রেওয়াজ আছে। সেই হিসাবে চলতি মাসের প্রথমসপ্তাহে ফলপ্রকাশের কথা ছিল। কিন্তু করোনাসংক্রমণের কারণে ফল তৈরির কাজ বন্ধ ছিল।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter