ঘাতক সেই চালকের লাইসেন্সই নেই

অনলাইন ডেস্কঃ

দিয়া ও করিম এর ঘাতক সেই জাবালে নূর পরিবহনের চালক মাসুম বিল্লাহ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ড্রাইভার মাসুম বিল্লার ওই গাড়ি চালানোর উপযুক্ত ড্রাইভিং লাইসেন্সই নেই।

সাত দিনের রিমান্ড শেষে গতকাল তাকে আদালতে হাজির করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নেয়ার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক কাজী শরিফুল ইসলাম।

এরপর ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবী তার খাসকামরায় ১৬৪ ধারায় দেয়া মাসুমের জবানবন্দি রেকর্ড করে তাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেন।

গত ২৯শে জুলাই বিমানবন্দর সড়কে ওই দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পরদিন বরগুনা থেকে মাসুমকে গ্রেপ্তার করে আনার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাতদিনের রিমান্ডে নেয় গোয়েন্দা পুলিশ ।

পুলিশের অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার মোহাম্মদ আনিসুর রহমান সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, মাসুম বেশি যাত্রী পাওয়ার আশায় ওই দিন আরেকটি বাসের আগে পৌঁছতে বেপরোয়া চালিয়ে সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা ওই শিক্ষার্থীদের ওপর তার গাড়িটি তুলে দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মাসুমের লাইসেন্স পর্যালোচনা করে দেখা গেছে যে তিনি হালকা গাড়ি চালানোর উপযুক্ত।

বাস বা ভারি গাড়ি চালানোর অনুমতি তার নেই। বাসচাপায় নিহত দিয়ার বাবা বাসচালক জাহাঙ্গীর আলম ফকির মামলা করলে র‌্যাব মাসুম ছাড়াও জাবালে নূরের আরও দুই বাসচালক ও দুই সহকারীকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন চালক জোবায়ের ও সোহাগ আলী এবং সহকারী এনায়েত হোসেন ও রিপন হোসেন।

এছাড়াও গ্রেপ্তার করা হয় জাবালে নূর পরিবহনের মালিক শাহাদাত হোসেনকে। গ্রেপ্তার সবাই রিমান্ডে রয়েছে।

-আরবি

Print Friendly, PDF & Email