খালেদাজিয়ার নতুন আদালতে কঠোর নিরাপত্তা

অনলাইন রিপোর্টঃ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার বিশেষ আদালত আজ পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে বসতে যাচ্ছে।

বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসার পরিবর্তে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বন্দিশালায় এ ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হচ্ছে।

এ উপলক্ষে সকাল থেকে কারাগার এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। কারাগারের সামনের সড়কে যানবাহন ও সাধারণ মানুষের চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার সকালে নাজিমুদ্দিন রোডের বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে তল্লাশি চৌকি। কারাগারের ফটকের সামনে নিরাপত্তা অন্যান্য দিনের চেয়ে আরো জোরদার করা হয়েছে। গলির মুখে মুখেও রয়েছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। বন্ধ রয়েছে ওই এলাকার দোকানপাট।

সকাল থেকে কারাগারের সামনে অবস্থান নেন গণমাধ্যমকর্মী, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবী ও নেতাকর্মীরা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি প্রস্তুত রাখা হয়েছে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের গাড়ি।

বিশেষ আদালত-৫-এর কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম বলেন, আসামি ও বাদীপক্ষের আইনজীবীদের ছয়জন করে মোট ১২ জন কারাগারের ভেতরের আদালতে যেতে পারবেন।

কারাগারে সাংবাদিকরা যেতে পারবেন। তবে সেখানে কোনো ক্যামেরাপাসন যেতে পারবেন না। সাংবাদিকদের মোবাইল রেখে শুধু আইডি কার্ড নিয়ে যেতে পারবেন বলে জানান তাজুল ইসলাম।

গতকাল মঙ্গলবার কারা অভ্যন্তরে আদালত স্থাপনের প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন মন্ত্রণালয়। তবে একে আইন পরিপন্থী বলেছেন খালেদা জিয়ার দল বিএনপি ও তাঁর আইনজীবীরা।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email