পাকিস্তানে ভারতের টিভি চ্যানেল নিষিদ্ধ

আন্তর্জাতিকঃ

পাকিস্তানে এখন থেকে চলবে না ভারতীয় কোনো টিভি চ্যানেল। নদীতে বাঁধ দেয়ার প্রতিবাদে পাকিস্তানে ভারতীয় সব টিভি চ্যানেলের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার বলেছেন, পাকিস্তানের দিকে বয়ে যাওয়া নদীতে ভারত বাঁধ দেয়ায় এই রায় যথাযথ হয়েছে। পাকিস্তানের দাবি, ভারত এসব বাঁধ অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে। তবে ভারত এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

বিবিসি’র খবরে বলা হয়, এর আগে ১৯৬৫ সালে পাকিস্তান-ভারত যুদ্ধের জের ধরে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে দেশটি। পরে ২০০৮ সালে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় দেশটির আদালত। আবার নতুন করে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো।

লাহোর হাইকোর্টের দেয়া রায় বাতিল করে বিচারপতি নিসার বলেছেন, ‘ওরা আমাদের পানি বন্ধ করে দিচ্ছে। আমরা কেন ওদের চ্যানেল বন্ধ করতে পারব না?’

পাকিস্তানের ৮০ ভাগ কৃষিকাজ হিমালয় থেকে বয়ে আসা নদীর সেচের ওপর নির্ভরশীল। এর আগে কাশ্মির ইস্যুকে কেন্দ্র করে ২০১৬ সালে প্রতিবেশী দেশটির সব টিভি ও রেডিও চ্যানেল নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান।