এ মৌসুমে মেদ কমানোর সহজ উপায়

লাইফস্টাইলঃ
শীত মানেই বিয়ের দাওয়াতের ধুম। সেই সঙ্গে আত্মীয় স্বজনের বাড়ির দাওয়াত তো আছেই, থাকে পিকনিকও। আর শীতে একটু ভারী খাবার খেতেও দারুণ লাগে।

কিন্তু ব্যায়াম করা হয়না আলসেমিতে। ফলে সবকিছু মিলিয়ে ওজন এবং পেটের মেদ দুটোই সমান তালে বাড়তে থাকে। কিন্তু পেটের মেদ বেড়ে গেলেও সমস্যা। যে কোনো পোশাকেই বেমানান লাগে। তাই দাওয়াতের মৌসুমে পেটের মেদ নিয়ন্ত্রণে রাখার কিছু টিপস জেনে রাখুন।

পোলাও এবং ডেসার্ট কম খান:

দাওয়াতে গেলে চেষ্টা করুন পোলাও কম খাওয়ার। কার্বোহাইড্রেট কম খেলে ওজন খুব বেশী বাড়ে না। প্রোটিন জাতীয় খাবার খান। খাবার টেবিলে বেছে নিন মুরগির মাংস এবং ডিম। গরুর মাংস কম খান। খেলেও তৈলাক্ত ঝোল এবং চর্বি বাদ দিয়ে অল্প করে খান। সালাদ খান বেশী করে। কোমল পানীয় পান না করে বোরহানি অথবা সল্ট লাচ্ছি খেতে পারেন। খাবার শেষে ডেসার্ট খেতে ইচ্ছে করলেও নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন

গরম পানি-লেবু:

পেটের মেদ কমানোর দারুণ একটি উপায় হলো নিয়মিত লেবু-পানি পান করা। প্রতিদিন সকালে হালকা গরম পানিতে কয়েক ফোটা লেবুর রস দিয়ে পান করুন। আপনার মেটাবোলিজম বাড়বে এবং দ্রুত মেদ কমবে।

গরম পানি-জিরা:

গরম পানিতে এক চা চামচ জিরা দিয়ে দুই মিনিট ফুটিয়ে নিন। এরপর পানিটা ছেকে পান করুন। এই পানি নিয়মিত পান করলে মেটাবোলিজম বেড়ে দ্রুত মেদ কমে। সেই সঙ্গে হজমও ভালো হয়।

চিনি বাদ দিন:

বাড়িতে হয়তো গ্রিন টি খাচ্ছেন চিনি ছাড়া। কিন্তু দাওয়াতে গেলে প্রচুর দুধ-চিনি দেয়া চা-কফি পান করছেন। পেটের মেদ কমাতে চাইলে চিনি খাওয়া বাদ দিতে হবে। যে কোনো খাবারই চিনি ছাড়া খাওয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

আরও পড়ুনঃ

শপথ নিলেন এরশাদ

প্রচুর পানি পান:

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পানির বিকল্প নেই। যে কোনো খাবার শুরু করার আগে এক গ্লাস পানি পান করে নিন। এতে অতিরিক্ত খেয়ে ফেলার ভয় থাকবে না। সারাদিনই হালকা গরম পানি পান করুন।

-আরবি

Print Friendly, PDF & Email