মুখ দেখে চিনলে খুলবে ‘ফ্লাইজু’র দরজা

বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তিঃ
নতুন প্রজন্মের জন্য ফিউচার হোটেল নিয়ে এসেছে চীনের অনলাইন জায়ান্ট আলিবাবা। এ হোটেলে ওয়েটারের সব কাজ হবে রোবটিক্স প্রযুক্তির মাধ্যমে। সেইসঙ্গে থাকছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

হোটেলে কোনো নিরাপত্তাকর্মী নেই, অথচ আপনাকে পরীক্ষা করা হচ্ছে। মুখমণ্ডল দেখে খুলছে দরজার লক। নির্দেশ দিলেই চালু হচ্ছে টিভি আর আলো জ্বালানোর ডিভাইস। এমনই অত্যাধুনিক হোটেল নির্মাণ করেছে চীনের অনলাইন জায়ান্ট আলিবাবা। সাংহাই থেকে ১৭০ কিলোমিটার দূরে চীনের ঝেইজিয়াং প্রদেশের হাংঝউ শহরে নির্মিত এ ফিউচার হোটেলের নাম ‘ফ্লাইজু’। হোটেলের খরচ কমাতে কর্মচারী কমিয়ে রোবটিক প্রযুক্তিকে বিভিন্নভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে এ হোটেলে।

ফ্লাইজু হোটেল কর্মকর্তা বলেন, এই হোটেল এমন রুমগুলোর বিশেষত্ব হল এখানে আপনি শুয়ে বসে থেকে অর্ডার দেবেন, আর সব কাজ রোবট করে দেবে। রোবট টিভি চালু, পর্দা সরানো, লাইট জ্বালানোর কাজ করে দেবেন।

ফ্লাইজুর প্রধান নির্বাহী বলেন, আমাদের প্রযুক্তি আর আবিষ্কার দিয়ে সব হোটেল কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করতে চাই। অতিথিদের পর্যবেক্ষণ করা হবে মেশিনে, সব সেবারও দেওয়া হবে রোবটের মাধ্যমে। এতে হোটেলের জনপ্রিয়তা বাড়বে।

এ হোটেলের এলিভেটরে আগতদের মুখমণ্ডল স্ক্যান করছে। কক্ষে প্রবেশের সময় আরেকবার মুখমণ্ডল চিনে দরজা খুলে দিচ্ছে রোবট। কথা বললেই রোবটিক প্রযুক্তির মাধ্যমে হচ্ছে সব কাজ।

ডিসেম্বরে এ হোটেলটি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। ২৯০ কক্ষ বিশিষ্ট এ হোটেলে একদিনের জন্য আপনাকে গুণতে হবে আড়াইশ’ ডলার। ভবিষ্যতে হোটেল ইন্ডাস্ট্রির কাছে এই হোটেলটি বিক্রির পরিকল্পনা রয়েছে আলিবাবার।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter