আঙ্গুলে চোট; সাকিব খেলছেন না ওয়ানডে সিরিজে

স্পোর্টসঃ
কুমিল্লার চ্যাম্পিয়নের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে বিপিএল। এবার সকলের দৃষ্টি নিউজিল্যান্ড সফরের দিকে।

ইতোমধ্যে দুই দফায় কিউইদের দেশে গিয়েছে টাইগাররা। আজ রাতে শেষ দফায় মার্টিন ক্রো, ম্যাককালামদের দেশের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়ার কথা রয়েছে বাকিদের।

কিন্তু তার আগেই দুঃসংবাদ বাংলাদেশ শিবিরে। বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার জাতীয় দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ইনজুরির কারণে খেলতে পারছেন না ওয়ানডে সিরিজে।

বিষয়টি গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন বিসিবির মিডিয়া ম্যানেজার রাবেদ ইমাম।

গতরাতে বিপিএলের ফাইনালে একাদশ ওভারের পঞ্চম বলে কুমিল্লার লঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা একটি শর্ট ডেলিভারি পুল করতে গিয়ে বল সাকিবের গ্লাভসে লাগে। তখনই বাঁহাতের অনামিকায় চোট পান। কিন্তু শিউর হওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হয় ম্যাচের শেষ হওয়া পর্যন্ত।

ম্যাচ শেষে স্ক্যান করে ধরা পড়ে চিড় ধরেছে আঙুলে। তাই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পক্ষ থেকে জানানো হয়, মাসখানেকের মধ্যে আর মাঠে ফেরা হচ্ছে না সাকিবের।

সাকিবের ইনজুরি সম্পর্কে বিসিবির চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরী জানান, ম্যাচের পরেই সাকিবের এক্সরে করানো হয়েছে এবং আমরা নিশ্চিত হয়েছি তার আঙুলে চিড় আছে। এই চোট সেরে উঠতে কমপক্ষে তিন সপ্তাহ লেগে যাবে।

এর আগে গত বছরের জানুয়ারিতে দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চোট পান সাকিব। যার ফলে খেলতে পারেননি লঙ্কানদের বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ। তার পরিবর্তে অধিনায়কত্ব করেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। পরে শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফির প্রথম দিকেও অনুপস্থিত থাকেন।

সেই চোটের কারণে ধুঁকেছেন পরে এশিয়া কাপেও। সেপ্টেম্বরে সংযুক্ত আরব আমিরাত এশিয়া কাপ থেকে ফিরতে হয়েছে ফাইনালের আগেই। খেলতে পারেননি অক্টোবরে দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ে সিরিজে। এবার আঙুলের নতুন চোট ছিটকে দিল তাকে।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ নেপিয়ারে শুরু হবে আগামী বুধবার। আর টাইগারদের প্রথম টেস্ট ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে, দ্বিতীয়টি ৮ মার্চ থেকে। ১৬ মার্চ থেকে শুরু হতে যাওয়া শেষ টেস্টে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সাকিবকে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।