আয়কর ফাঁকি দিতে সোনা, হিরা, টাকা কবরে

অনলাইনঃ
আয়কর দপ্তরের নজর এড়াতে কবরে ঢুকিয়ে রাখা হয়েছিল হিসাব বহির্ভূত কোটি কোটি টাকা ও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র।

মাটিতে পুঁতে রাখা সেই সোনা, হিরা আর টাকার মোট মূল্য ৪৩৩ কোটি টাকা।

ভারতের চেন্নাই আর কোয়মবত্তূরে ব্রহ্মাণ্ডমাই’ নামে একটি সারাভানা স্টোর এবং দুটি প্রোমোটার সংস্থা লোটাস গ্রুপ ও জিস্কোয়্যার-এর অফিসে এক সপ্তাহেরও বেশি ধরে তল্লাশি চালিয়ে এসব সম্পদ উদ্ধার করে আয়কর কর্তারা।

আয়কর কর্তারা জানিয়েছেন, সেই টাকা, হিরা, সোনা রাখা হয়েছিল কয়েকটি কবরে। সেগুলো খুঁড়ে হিসাব বহির্ভূত নগদ ২৫ কোটি টাকা, ১২ কিলোগ্রাম ওজনের সোনা এবং ৬২৬ ক্যারাট ওজনের হিরা উদ্ধার করা হয়।

আয়কর হানাদারি একইসঙ্গে চালানো হয়েছিল চেন্নাই ও কোয়মবত্তূরের ৭২টি জায়গায়। সবক’টি জায়গাতেই রয়েছে ওই সারাভানা স্টোরের মালিক যোগারাথিনাম পোন্ডুরাই ও তার সহযোগী রামজায়াম ওরফে বালার স্থাবর সম্পত্তি। বালা দুটি প্রোমোটার সংস্থা লোটাস গ্রুপ ও জিস্ক্যোয়্যার-এর মালিক।

এক আয়কর কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তাদের অভিযানের খবর আগেভাগেই পেয়ে গিয়েছিলেন পোন্ডুরাই ও বালা। পুলিশেরই কাছ থেকে সেই খবর তারা পেয়ে গিয়েছিলেন। তখন তারা একটি এসইউভি গাড়িতে টাকা, সোনা, হিরা চাপিয়ে পালিয়ে যান। সেগুলি দূরের একটি জায়গায় গিয়ে মাটিতে পুঁতে দেন।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter