প্রিয়াংকার প্রথম শোডাউন লখনউতে

আন্তর্জাতিকঃ
ভারতের অতি প্রাচীন কংগ্রেস দলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথমবার উত্তর প্রদেশ রাজ্যের রাজধানী লখনউ গেলেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।

সোমবার লখনউ পৌঁছে কংগ্রেস সভাপতি ভাই রাহুল গান্ধীকে সঙ্গে নিয়ে প্রথমবারের মত শোভাযাত্রা করেছেন তিনি।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর প্রথম শোভাযাত্রাকে ঘিরে জড়ো হয় প্রচুর মানুষ। শোভাযাত্রা থেকে উপস্থিত সমর্থক ও নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন প্রিয়াঙ্কা।

সম্প্রতি কংগ্রেসের উত্তর প্রদেশের পূর্বাঞ্চলের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান প্রিয়াঙ্কা। তার সঙ্গেই নতুন দায়িত্ব পান মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া।

তিনি উত্তরপ্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলে কংগ্রেসকে শক্ত ভিতের ওপর দাঁড় করাতে কাজ করবেন। ইতিমধ্যে দায়িত্ব বুঝে নিয়েছেন জ্যোতিরাদিত্য। সোমবার তিনিও প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে শোভাযাত্রায় অংশ নেন।

খাতা-কলমে রাজনৈতিক জীবন শুরুর আগে পরিবর্তনের বার্তা দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা। শক্তি অ্যাপের মাধ্যমে রোববার সমর্থকদের প্রিয়াঙ্কা বলেন, ‘আমি চাই আমাদের সবার অংশগ্রহণের মাধ্যমে রাজনীতিতে একটা পরিবর্তন আসুক। রাজনীতির পরিসর এমন হোক যেখানে সকলে নিজেকে তার অংশ ভাবতে পারে।’

লখনউ বিমানবন্দরে নামার পর ভাই রাহুল গান্ধী ও কংগ্রেস নেতা জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়াকে সঙ্গে নিয়ে শোভাযাত্রা সহকারে লখনউ শহরের কংগ্রেসের কার্যালয়ে উদ্দেশ্য রওনা হন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। লখনউয়ে কংগ্রেসের কার্যালয় থেকেই সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রিয়াঙ্কা।

জানা গেছে, আগামী তিন চার দিন উত্তরপ্রদেশেই থাকবেন প্রিয়াঙ্কা। বিভিন্ন এলাকার নেতাদের সঙ্গে কথা বলে সংগঠনের হাল হকিকত বুঝে নেবেন তিনি।

ভারতের সবচেয়ে বড় রাজ্য উত্তরপ্রদেশে ৮০টি লোকসভা কেন্দ্র রয়েছে। তার মধ্যে প্রিয়াঙ্কা প্রায় ৪০টি কেন্দ্র নিয়ে বৈঠক করবেন বলে খবর। এরপর দিল্লি ফিরে যাওয়ার কথা তার। তবে এই সফরে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের কয়েকটি স্থানেও যেতে পারেন প্রিয়াঙ্কা।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter