ভারত আরও এগিয়ে গেল

স্পোর্টসঃ
মঙ্গলবারের ম্যাচে ঘটনার কমতি ছিল না। যে নাগপুরে রোহিত শর্মার গড় ছিল ১শ’র ওপরে সেই তিনি আউট হলেন ০ রানে, ক্যারিয়ারে ঘরের মাটিতে প্রথম ডাক।

এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলির (১১৬) ক্ল্যাসিক্যাল সেঞ্চুরির পরও ৪৮.২ ওভারে ভারত গুটিয়ে গেল ২৫০ রানে। জবাবে ২৪২ রানে অলআউট অস্ট্রেলিয়া হারল ৩ বল বাকি থাকতে। শেষ ওভারে সফরকারীদের প্রয়োজন ছিল ১১ রান, আর ভারতের ২ উইকেট।

আগের পাঁচ ম্যাচে একটিও উইকেট না পাওয়া বিজয় শঙ্কর দারুণ বোলিংয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম শিকারের পর প্রতিপক্ষের শেষ ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে উপহার দিলেন ৮ রানের নাটকীয় জয়। চমতকার ইনিংসটির জন্য ম্যাচসেরা কোহলি। পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ভারত এগিয়ে গেল ২-০ ব্যবধানে। রাচিতে তৃতীয় ওয়ানডে শুক্রবার।

মার্কাস স্টয়নিস ক্রিজে ছিলেন বলে আশায় ছিল অস্ট্রেলিয়া। শেষ ওভারের প্রথম বলে স্টয়নিসকে (৬৫ বলে ৫২) এলবিব্লিউ করে ওয়ানডেতে নিজের প্রথম উইকেট নেন শঙ্কর। এক বল পর এ্যাডাম জ্যাম্পকে (২) বোল্ড করে দলকে এনে দেন দারুণ জয়। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শূন্য রানে রোহিতকে হারায় ভারত। শিখর ধাওয়ান (২১) ও অম্বাতি রায়ডু (১৮) ফেরেন থিতু হয়ে। ৭৫ রানে তিন উইকেট হারানো ভারতকে টানেন কোহলি ও শঙ্কর। দ্রুত এগোনো শঙ্করের দুর্ভাগ্যজনক রান আউটে ভাঙ্গে ৮১ রানের জুটি। কোহলির স্ট্রেট ড্রাইভ বোলার জ্যাম্পার আঙ্গুল ছুঁয়ে বেলস ফেলে দিলে রান আউট হয়ে যান শঙ্কর। ৪১ বলে পাঁচ চার ও এক ছক্কায় ৪৬ রান করে ফেরেন এই অলরাউন্ডার। কেদার যাদব (১১) ও মহেন্দ্র সিং ধোনির (০) দ্রুত বিদায়ের পর অধিনায়ককে কিছুটা সঙ্গ দেন রবীন্দ্র জাদেজা (২১)। সেঞ্চুরির পর ফিরে যান কোহলিও।

১২০ বলে খেলা তার ১১৬ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংস গড়া ১০ চারে। প্যাট কামিন্সের পেস তোপে পুরো ৫০ ওভার ব্যাটিং করতে পারেননি ভারত। অলআউট হয়ে যায় ১০ বল বাকি থাকতে। গতিময় পেসার কামিন্স ২৯ রানে নেন ৪ উইকেট।

রান তাড়ায় ৮৩ রানের উদ্বোধনী জুটিতে অস্ট্রেলিয়াকে ভাল শুরু এনে দেন এ্যারন ফিঞ্চ ও উসমান খাজা। ৫৩ বলে ৩৭ রান করা ফিঞ্চকে ফিরিয়ে শুরুর জুটি ভাঙ্গেন কুলদীপ যাদব। পরের ওভারে ৩৭ বলে ৬ চারে ৩৮ রান করা খাজাকে ফিরিয়ে দেন কেদার। শন মার্শ (১৬) ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের (৪) দ্রুত বিদায়ে চাপে পড়ে যায় সফরকারীরা। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৪৮ রান করা পিটার হ্যান্ডসকমকে সরাসরি থ্রোয়ে রান আউট করে থামান জাদেজা। এক প্রান্তে নিয়মিত উইকেট হারাচ্ছিল অস্ট্রেলিয়া। অন্য প্রান্তে অবিচল ছিলেন স্টয়নিস। তবে শেষরক্ষা করতে পারেননি। শঙ্করের দারুণ বোলিংয়ে মেলাতে পারেননি শেষ ওভারে ১১ রানের সমীকরণ। স্টয়নিস ৬৫ বলে ফেরেন ৫২ রান করে। স্পিনার কুলদীপ ৫৪ রানে নেন ৩ উইকেট। দুটি করে জাসপ্রিত বুমরাহ ও শঙ্কর।

-টিএস