‘বৌদ্ধ পূর্ণিমা’ উৎসবে হামলার আশঙ্কা!

অনলাইনঃ

আগামী ১৮ মে অনুষ্ঠিত হবে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব ‘বৌদ্ধ পূর্ণিমা’। তবে এ দিনটিকে ঘিরে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা করছে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা ব্যুরো (আইবি)। ইতোমধ্যে সতর্কতাও জারি করেছে।

আইবি এর বরাতে জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি) অথবা ইসলামিক স্টেট (আইএস) বৌদ্ধ পূর্ণিমার সময় পশ্চিমবঙ্গ অথবা বাংলাদেশে ‘ফেদাইন’ হামলা চালাতে পারে। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারকে শুক্রবার বিকেলে এ বিষয়ে অবহিত করেছে। তাতে পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে আগেভাগে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ইসরাইলের বিরুদ্ধে আরবে যে গেরিলা যুদ্ধ তাকে ফেদাইন আক্রমণ হিসেবে অভিহিত করা হয়। ভারতের কেন্দ্রীয় ইন্টেলিজেন্স ব্যুরোর ওই সতর্কতায় বলা হয়েছে, ফেদাইনরা অন্তঃসত্ত্বা নারীর বেশ ধরে অবিভক্ত বাংলার হিন্দু বা বৌদ্ধদের উপাসনালয়ে প্রবেশ করতে পারে হামলা চালাতে। এই অবিভক্ত বাংলা বলতে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ ও স্বাধীন বাংলাদেশকে বোঝানো হয়েছে।

সতর্কতা পেয়ে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ রাজ্যজুড়ে হিন্দু ও বৌদ্ধ উপাসনালয়গুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করেছে। পশ্চিমবঙ্গ পুলিশের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা বলেছেন, আমরা এ বিষয়ে এলার্ট পেয়েছি। আমরা কলকাতা ও রাজ্যের অন্যান্য অংশের মন্দিরগুলোর বাইরে জোরদার করেছি নিরাপত্তা। আমরা কোনো সুযোগ দিচ্ছি না।

ওই রিপোর্টে আরো বলা হয়, দু’সপ্তাহ আগে আইসিসপন্থি টেলিগ্রাম চ্যানেল একটি বার্তা প্রকাশ করে। এতে পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশে হামলা চালানোর হুমকি দেয়া হয়। কলকাতা পুলিশের ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘একই রকম সতর্কতা অবহেলা করেছিল শ্রীলঙ্কা কর্তৃপক্ষ। ফলে আমরা সেখানে বহু মানুষকে হতাহত হতে দেখেছি। কিন্তু আমরা এই এলার্ট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিয়েছি। আমাদের অন্য সব কর্মকর্তাদের এলার্ট করেছি উচ্চ পর্যায়ে সতর্ক থাকার জন্য এবং এমন যেকোনো হামলা প্রতিরোধে প্রস্তুত থাকার জন্য।’

Print Friendly, PDF & Email