ছাত্রলীগের বিতর্কিত ৯৯ নেতার নাম প্রকাশ

সদ্য ঘোষিত ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ উঠেছে। কারও কারও বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগও উঠেছে। অভিযোগগুলোর মধ্যে রয়েছে- মাদকাসক্ত, মামলার আসামি, জামায়াত-শিবির কানেকশন, সংগঠনের শৃঙ্খলাবিরোধী কার্যকলাপ, বিবাহিত ইত্যাদি।

ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটির ৯৯ জনকেই ‘বিতর্কিত’ আখ্যা দিয়েছেন সংগঠনের পদবঞ্চিতরা। সংবাদ সম্মেলনে এই ৯৯ জনের নামের তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করে ‘বিতর্কিতদের’ নামের তালিকা প্রকাশ করেন পদবঞ্চিতরা। এ সময় তারা পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদ দেয়ার আগে নেতাদের ডোপ টেস্ট করানোর দাবিও জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে নেতারা বলেন, ‘বুধবার মধ্যরাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ধানমণ্ডির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিতর্কিত ১৭ জনের কথা উল্লেখ করেছেন। তাতেই প্রমাণ হয়, আমাদের দাবি যৌক্তিক। তবে তারা ১৭ জন বললেও এই কমিটিতে ৯৯ জনই ‘বিতর্কিত’।

ছাত্রলীগের পদবঞ্চিত নেতারা বলেন, ‘আমাদের অবস্থান ছাত্রলীগ কিংবা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে নয়, আমাদের অবস্থান ‘বিতর্কিতদের’ বিরুদ্ধে।’

সংবাদ সম্মেলনে মূল বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির সাবেক প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু। তার সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সোমবার ছাত্রলীগের ৩০১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটি ঘোষণার পরই ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা এই কমিটির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেন। পরে তারা মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলন করে কমিটি থেকে অযোগ্যদের বের করে যোগ্যদের মূল্যায়ন করতে ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন।

পরে বুধবার রাতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা সংবাদ সম্মেলনে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিতর্কিতদের কমিটি থেকে অব্যাহতি দেয়ার ঘোষণা দেন।

Print Friendly, PDF & Email