পাকিস্তানের বিপক্ষে অষ্ট্রেলিয়ার জয়

স্পোর্টসঃ
পাকিস্তানের বিপক্ষে ৪১ রানের জয়ী হল বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া।

অজিদের দেয়া ৩০৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ২৬৬ রানে গুটিয়ে যায় তারা।

বিশ্বকাপের ১৭তম ম্যাচে টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় পাকিস্তান। অস্ট্রেলিয়া সব উইকেট হারিয়ে সংগ্রহ করে ৩০৭ রান।

শুরু থেকেই পাকিস্তানের বোলারদের শাসন করতে থাকেন অজি ব্যাটসম্যানরা। অজি দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ, ডেভিড ওয়ার্নার গড়েন শত রানের জুটি। ফিঞ্চ ৮২ বিদায় নিলেও একদিক থেকে সামাল দেন ওয়ার্নার। শতকের দেখাও পান এই অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার।

তবে ১১১ বলে ১০৭ রান পূর্ণ করা ওয়ার্নারকে থামিয়ে দেন শাহীন আফ্রিদি। ইমামুল হকের ক্যাচের শিকার হওয়া এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে আসে ১১টি চার ও একটি ছয়ের মার।

কিন্তু এই দুজনের বিদায়ের পর খেই হারিয়ে ফেলে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

একের পর এক উইকেট হারাতে থাকেন তারা। পরের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বোচ্চ ২৩ রান আসে শর্ন মার্শের ব্যাট থেকে। ২০ করে রান করেন ম্যাক্সওয়েল ও অ্যালেক্স কেরি।

পাকিস্তানি বোলারদের কাম ব্যাকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেন পেসার মো. আমির। ১০ ওভারে তিনি ৩০ রানে তুলে নেন ৫ উইকেট। দুটি উইকেট পান শাহীন আফ্রিদী। একটি করে উইকেট তুলে নেন হাসান আলী, ওয়াহাব রিয়াজ ও মো. হাফিজ। এক ওভার বাকী থাকতেই অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া।

এই রান তাড়া করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় পাকিস্তান। পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৩ রান করেন ইমাম উল হক। ৪৬ রান আসে মো. হাফিজের ব্যাট থেকে। তবে শেষ মুহুর্তে সরফরাজ আহমেদ ও ওয়াহাব রিয়াজের ব্যাটে স্বপ্ন দেখতে শুরু করে পাকিস্তান। তবে স্টার্ক জোড়া আঘাতে সেই স্বপ্ন ভঙ্গ হয় তাদের। সরফরাজ আহমেদ করেন ৪০ ও ওয়াহাব রিয়াজ করেন ৪৫ রান। ৪৫ ওভার ৪ বলে ২৬৬ রান করে গুটিয়ে যায় পাকিস্তানের ইনিংস।

৩টি উইকেট পকেট বন্দী করেছেন প্যাট কামিন্স। আর ২টি করে উইকেট পান কেন রিচার্ডসন ও স্টার্ক। আর নাইল ও ফিঞ্চ পান একটি করে উইকেট।

বিশ্বকাপের আজকের ম্যাচে উভয় দল নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে পরস্পরের মোকাবেলা করে। খেলাটি অনুষ্টিত হয় টন্টনে। শুরু হয় বাংলাদেশ সময় বিকেল সাড়ে ৩টায়।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া প্রথম তিন ম্যাচে দু’টিতে জয় পেলেও, একটিতে হয় পরাজিত। পয়েন্ট তালিকার চতুর্থ স্থানে ৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। অন্যদিকে সরফরাজের দল তিন ম্যাচের একটিতে জয় ও একটি হারে রয়েছে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে। আট নম্বরে থাকা দলটি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে পরিত্যক্ত হওয়া ম্যাচে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে নেয়।

-কেএম

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter