নবাবগঞ্জে যুবলীগের এক নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

অনলঅইনঃ

যুবলীগের এক নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায়। এ ঘটনা ঘটে গতকাল রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার শোল্লা ইউনিয়নের আটকাহুনিয়া গ্রামে।

নিহত যুবলীগ নেতার নাম মো. আরিফুল ইসলাম (৩৫)। তিনি শোল্লা ইউনিয়ন ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

পুলিশ বলছে, পূর্বশত্রুতার জেরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে তারা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে।

নিহত ব্যক্তির পরিবার, স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্র জানায়, আরিফুলের সঙ্গে একই এলাকার কয়েকজনের পূর্ববিরোধ ছিল। গতকাল সন্ধ্যায় আরিফুল বাড়ি ফেরামাত্র তাঁর ওপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় কয়েকজন দুর্বৃত্ত। এ সময় বাঁচার জন্য আরিফুল দৌড়ে ঘরের ভেতরে ঢুকে দরজা লাগিয়ে দেন। হামলাকারীরা ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে আরিফুলকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই আরিফুলের মৃত্যু হয়।

খবর পেয়ে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। তারা আরিফুলের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

সোমবার সকালে আরিফুলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

আরও পড়ুনঃ

বঁটি দিয়ে শিশু সন্তানকে হত্যা করলো মা

নবাবগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই তদন্ত) এসআই মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। এখনো কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।’

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter