২৮ আগস্ট সাবেক প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা (এসকে সিনহা) সহ ১১ জনের বিরুদ্ধে করা দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন ২৮ আগস্ট ধার্য করেছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার, ফারমার্স ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতি ও চার কোটি টাকা আত্মসাতে জড়িত থাকার অভিযোগে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাসহ (এসকে সিনহা) ১১ জনের বিরুদ্ধে দুদকের করা মামলাটির এজাহার আদালতে পৌঁছলে ঢাকার সিনিয়র বিশেষ জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এজাহার গ্রহণ করে দুদকের পরিচালক ও মামলার বাদী সৈয়দ ইকবাল হোসেনকে মামলাটি তদন্ত করে ২৮ আগস্টের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দেন।

এস কে সিনহা ছাড়া মামলার বাকি আসামিরা হলেন- ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক এমডি এ কে এম শামীম, সাবেক এসইভিপি গাজী সালাহউদ্দিন, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউদ্দিন আহমেদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুৎফুল হক, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান, একই এলাকার নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা, রনজিৎ চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রী সান্ত্রী রায়।

এর আগে বুধবার দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

ক্ষমতার অপব্যবহার, প্রতারণা ও জালিয়াতির মাধ্যমে ফারমার্স ব্যাংক থেকে ঋণের নামে ৪ কোটি টাকা পে-অর্ডারের মাধ্যমে এসকে সিনহার ব্যক্তিগত হিসাবে স্থানান্তরের অভিযোগ করা হয় মামলায়।

দণ্ডবিধির ১০৯, ৪০৯, ৪২০ ধারা, ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারা এবং ২০১২ সালের মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের ৪(২) ও (৩) ধারায় মামলাটি দায়ের হয়েছে।

এসকে সিনহা বর্তমানে সপরিবারে অস্ট্রেলিয়ায় মেয়ের কাছে বসবাস করছেন। মামলার আসামি হিসেবে তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে কিনা এ বিষয়ে জানতে চাইলে দুদকের সচিব মো. দিলোয়ার বখত বলেন, বিদেশে অবস্থানরত অন্যান্য আসামিদের ক্ষেত্রে যা হয় তার (এসকে সিনহা) ক্ষেত্রেও তাই করা হবে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ্য করা হয়েছে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা নিজে লাভবান হওয়ার অসৎ উদ্দেশ্যে নিজ ক্ষমতার অপব্যবহার করে অপরাপর আসামিদের সহায়তায় প্রভাব বিস্তার করে ফারমার্স ব্যাংক ঋণ সৃষ্টি করে নিজের ব্যক্তিগত হিসাবে ওই টাকা হস্তান্তর করেন।

উল্লেখ্য যে, দুদকের পক্ষে ঘটনাটি অনুসন্ধান করেন দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন ও সহকারী পরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধান।

-এইচএম

Print Friendly, PDF & Email