গাড়ির মামলায় আর কাগজ আটকাবে না পুলিশ

আইন আদালতঃ

ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া জানিয়েছেন, এখন থেকে আর জরিমানা আদায়ের জন্য চালক ও গাড়ির কাগজপত্র জব্দ করা হবে না।

চালক তার জরিমানার টাকা ঘটনাস্থলেই ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড, ভিসা, ক্যাশ, বিকাশ, রকেট ও অন্যান্য কার্ড ব্যবহার করে পরিশোধ করতে পারবে।

আজ রোববার (৪ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর কাকরাইল রাজমনি ক্রসিংয়ে ক্যাশ কার্ডের মাধ্যমে ট্রাফিক প্রসিকিউশনের জরিমানা আদায় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন ডিএমপি কমিশনার।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, এখন থেকে চালক বা মালিক হয়রানি থেকে মুক্ত থাকবে। আগে সীমাহীন অনিয়ম ও দুর্নীতি হতো। দুই হাজার টাকা নেয়া হলেও অল্প টাকা সরকারি কোষাগারে জমা করা হতো। এর আগে টাকা আদায় না হওয়া পর্যন্ত কাগজপত্র আটকা থাকত। টাকা দিতে দেরি হলে আরও ভোগান্তি হতো। নানা ধরণের বিড়ম্বনা ও হয়রানির শিকার হতে হতো।

রেকারিংয়ের বিষয়ে কমিশনার বলেন, ঢাকা মহানগরীতে গাড়ি রেকারিংয়ে নগদ টাকা জরিমানা নেয়া হয়। এখন থেকে রেকারিং ও প্রসিকিউশনে কোনও নগদ টাকায় জরিমানা পরিশোধ বা লেনদেন হবে না। এটিও ই-ক্যাশের মাধ্যমে জমা নেয়া হবে। নগদ টাকা লেনদেন হলে দুর্নীতি ও অস্বচ্ছতার সুযোগ থাকে।
আমরা নগরবাসীর সহযোগিতা চাই, আমরা যেভাবে আপনাদের কষ্ট ও সময় লাঘব করার জন্য কাজ করছি, ঠিক তেমনি নাগরিক হিসেবে আপনারাও দায়িত্ব নিয়ে ট্রাফিক আইন মেনে চলুন। আইন মেনে চললে ট্রাফিকের কাজটা সহজ হবে।

কমিশনার বলেন, একটি বিশেষ এলাকায় গেলে সবাই সোজা হয়ে যায়। জাহাঙ্গীর গেট পার হলেই সবার আইন অমান্যের পালা শুরু হয়। নো হেলমেট নো ফুয়েল এই শ্লোগানের কারণে আজ সবাই হেলমেট ব্যবহার করছে।

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter