অভিযানে ভারতে যাওয়ার পথে কাউন্সিলর আটক

আইন আদালতঃ
চলমান সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান থেকে বাঁচতে ভারতে পালাতে চেয়েছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩২ নম্বরের কাউন্সিলর হাবিবুর রহমান মিজান। কিন্তু তার আগেই মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছেন তিনি।

আজ ১১ অক্টোবর, শুক্রবার বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে এক ক্ষুদেবার্তায় র‌্যাব তাকে আটক করার সংবাদ জানায়।

বার্তায় বলা হয়, ‘চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে হাবিবুর রহমান মিজানকে পার্শ্ববর্তী দেশে পালিয়ে যাওয়ার প্রাক্কালে শ্রীমঙ্গল থেকে আটক করা হয়েছে।’

তবে কখন তাকে আটক করা হয়েছে তা জানানো হয়নি ওই ক্ষুদেবার্তায়। গত ৯ অক্টোবর, বুধবার তাকে ধরতে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের আওরঙ্গজেব সড়কের বাড়িতে অভিযান চালিয়েও তাকে ধরতে ব্যর্থ হয় র‌্যাব। আগেই আত্মগোপনে চলে যান মিজান।

‘পাগলা মিজান’ নামে পরিচিত হাবিবুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে টেন্ডারবাজি-চাঁদাবাজিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। তিনি মোহাম্মদপুরের বিহারি ক্যাম্পে মাদক ও চোরাই গ্যাস-বিদ্যুতের ব্যবসার সাথে জড়িত বলেও জানা গেছে।

জানা যায়, শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর সড়কের বাড়িতে হামলার আসামি একসময়ের ফ্রিডম পার্টির সদস্য মিজান। মোহাম্মদপুরে সক্রিয় একাধিক সন্ত্রাসী গ্রুপের মদতদাতা হিসেবে তিনি আলোচিত। ম্যানহোলের ঢাকনা চুরি থেকে শুরু করে মানুষ হত্যার মতো ভয়ঙ্কর অপরাধের অভিযোগও আছে এই ‘পাগলা মিজানে’র বিরুদ্ধে।

এছাড়াও কোটি কোটি টাকার টেন্ডারবাজি, ভূমি দখল, চাঁদাবাজিও নিয়ন্ত্রণ করেন মিজান। মোহাম্মদপুর বিহারি ক্যাম্পে মাদক ও চোরাই গ্যাস-বিদ্যুতের ব্যবসাও চলে তার ইশারায়।

চলমান সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান শুরুর দিকেও তাকে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায়। তবে গত কয়েকদিন আগেই আত্মগোপনে চলে যান মিজান।

ইতোপূর্বে দুই দিন আওরঙ্গজেব সড়কের বাড়িতে অভিযান চালিয়েও তাকে আটক করতে পারেনি র‌্যাব।

-কেএম

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।