প্রতি বছর ১৫ হাজার মানুষ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়

স্বাস্থ্যঃ

টেলিনর হেলথ স্তন ক্যান্সার সচেতনতার মাস অক্টোবর জুড়ে “দ্রুত সনাক্তকরণ বাঁচাবে জীবন” শিরোনামে স্তন ক্যান্সার সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন পরিচালনা করেছে।

সম্প্রতি স্তন ক্যান্সার সচেতনতা বিষয়ক একটি সেমিনারের পাশাপাশি ঢাকার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজ ক্যাম্পাসের বাইরে অপেক্ষমান মায়েদের কাছে সচেতনতামূলক নির্দেশিকা বিতরণের মাধ্যমে স্তন ক্যান্সার বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও সরাসরি প্রচারণার মাধ্যমে প্রায় ৫০ হাজার মানুষের মাঝে টেলিনর হেলথ সচেতনতা তৈরি করতে সক্ষম হয়।  

টেলিনর হেলথ বাড্ডা আলাতুন্নেসা স্কুল এন্ড কলেজে স্তন ক্যান্সার সচেতনতা বিষয়ক একটি সেমিনার আয়োজন করে। সেমিনারটি পরিচালনা করেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনোকোলজি বিভাগের অধ্যাপক গাইনোকোলজিস্ট এবং অবসটেট্রিশিয়ান, সার্ভিকাল অ্যান্ড ব্রেস্ট ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ ডঃ মুনিরা ফেরদৌসি এমবিবিএস, এফসিপিএস, এমএস (অবস ও গাইনোকোলজি)। 

এছাড়া পুরো অক্টোবর জুড়ে সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে প্রায় ৫০ হাজার মানুষের মাঝে সচেতনতা তৈরি করতে সক্ষম হয় টেলিনর হেলথ।

টেলিনর হেলথ-এর সিসিও অ্যান্ড্রু স্মিথ বলেন, ‘‘বিশ্বব্যাপী অক্টোবর মাসকে স্তন ক্যান্সার সচেতনতা মাস হিসাবে পালন করা হলেও আমাদের দেশে তেমন কোন কার্যক্রম পরিলক্ষিত হয় না। স্তন ক্যান্সার বাংলাদেশে নারীদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ হলেও এটি শরীরের সংবেদনশীল একটি অংশের রোগ হওয়ায় আমাদের দেশের অধিকাংশ নারী এই বিষয়ে কথা বলতে চান না। 

যার ফলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতি বছর ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়, যার মধ্যে মারা যায় ৭হাজার ২শ’ জন। তাই হেলথ ব্র্যান্ড হিসাবে আমরা বিশ্বাস করি ,মানুষের জীবন বাচাঁনোর জন্য এই সামাজিক কুসংস্কার থেকে বের করে আনতে আমাদের সাধ্যের মধ্যে যা কিছু করা যায় তার সবকিছুই করা আমাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে’’।

-কেএম

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter