‘ফ্রেন্ডস অব ইসরায়েল’ গ্রহণ করেছেন ট্রাম্প কন্যা ইভাঙ্কা

আন্তর্জাতিকঃ
‘ফ্রেন্ডস অব ইসরায়েল’ পদক গ্রহণ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কন্যা ও তার উপদেষ্টা ইভাঙ্কা ট্রাম্প।

গত ৮ জানুয়ারি, বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাস শহরে ইসরায়েলি-আমেরিকান কাউন্সিলের (আইএসি) পক্ষ থেকে তার হাতে পুরস্কারটি তুলে দেয়া হয়।

সূত্রের বরাতে গত ৯ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার এ সংবাদটি জানায় ইসরাইলি সংবাদমাধ্যম জেরুজালেম পোস্ট।

আইএসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শোহাম নিকোলেট এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ইভাঙ্কা ট্রাম্পকে সম্মাননা জানাতে পেরে ইসরাইলি-আমেরিকান কাউন্সিল গর্বিত। একজন সফল নারী ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা হিসেবে ইভাঙ্কা নারী নেতৃত্ব ও পারিবারিক মর্যাদার জন্য অনুপ্রেরণা।’

ট্রাম্প প্রশাসনের ইসরায়েলের স্বার্থের পক্ষে যেসব সিদ্ধান্ত আসে তার নেপথ্যে থাকেন ট্রাম্প কন্যা ইভাঙ্কা ও তার ইহুদি স্বামী জেরার্ড কুশনারের হাত দেখতে পান সমালোচকরা। তাদের হস্তক্ষেপের ফলে গত বছর ইসরায়েলি রাজধানী তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে নিজেদের দূতাবাসও স্থানান্তর করে যুক্তরাষ্ট্র।

এর জেরে বিক্ষোভে বহু ফিলিস্তিনির প্রাণ গেছে। গত বছর নতুন মার্কিন দূতাবাসে যেদিন ইভাঙ্কা ট্রাম্প ইসরায়েলি প্রতিনিধি দলকে স্বাগত জানান ঠিক সেদিনই ইসরাইলি বাহিনী ৬০ ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীকে গুলি করে হত্যা করে।

‘ফ্রেন্ডস অব ইসরায়েল’ পদক গ্রহণের পর এ বিষয়ে এক লিখিত বিবৃতিও দিয়েছেন ইভাঙ্কা। এতে তিনি বলেন, “ইসরায়েলি-আমেরিকান কাউন্সিল প্রদত্ত ‘ফ্রেন্ডস অব ইসরাইল’ পদক গ্রহণ করা বড় ধরনের সম্মান। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার পুরো প্রশাসন ইহুদিদের রক্ষা ও ইসরাইল রাষ্ট্রকে সমর্থনে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।”

যদি কোথাও ইহুদি-বিদ্বেষ দেখা যায় তাহলে তা মোকাবিলা করা হবে বলেও বিবৃতিতে উল্লেখ করেন ইভাঙ্কা।

-ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter