মুজিববর্ষের উপহার ই-পাসপোর্টঃ প্রধানমন্ত্রী

জাতীয়ঃ

বহুল প্রতীক্ষিত ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট (ই-পাসপোর্ট) ও স্বয়ংক্রিয় বর্ডার নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাপনার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় তিনি বলেন, ‘দেশের মানুষের জন্য মুজিববর্ষের প্রথম উপহার ই-পাসপোর্ট।’ ২২ জানুয়ারি, বুধবার বেলা ১১টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কে‌ন্দ্রে আয়ো‌জিত এক অনুষ্ঠা‌নে তিনি এ কার্যক্রমের উ‌দ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অতীতের ন্যায় আর গলাকাটা পাসপোর্ট হবে না। ফলে মানুষ আর ধোঁকায় পড়বে না। দক্ষিণ এশিয়ায় আমরাই প্রথম ই-পাসপোর্ট শুরু করলাম। বাংলাদেশ আরো একধাপ এগিয়ে গেলো।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমরাও পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন সেবাকে যুগোপযোগী করতে ই-পাসপোর্ট প্রদান শুরু করলাম। ই-পাসপোর্টের সঙ্গে ই-গেটও সংযোজিত হচ্ছে। ই-পাসপোর্ট ও ই-গেট সংযোজিত হলে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট সেবা সহজ, স্বাচ্ছন্দ্যময় ও আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণের হাতে ই-পাসপোর্ট পৌঁছে দেয়ার মাধ্যমে জাতির পিতার সোনার বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে আরো একটি মাইলফলক স্পর্শ করা হলো।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘প্রবাসীরা যখনই আসেন তখন শোনা যায় তারা নানা রকম হয়রানির শিকার হয়। ই-পাসপোর্ট থাকলে ভবিষ্যতে তারা এই হয়রানির শিকার আর কখনো হবেন না।’

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল প্রধানমন্ত্রী‌কে ই-পাস‌পোর্ট হস্তান্তর ক‌রেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপ‌তিত্বে অনুষ্ঠা‌নে আরো বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণাল‌য়ের সুরক্ষা সেবা বিভা‌গের স‌চিব মোহাম্মদ শহীদুজ্জামান, জার্মান দূতাবাস ঢাকার রাষ্ট্রদূত পিটার।

ডিকে

Print Friendly, PDF & Email
FacebookTwitter